শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
উড়িষ্যা থেকে কলকাতা ফেরার পথে ,ব্রীজ থেকে উল্টে পড়লো যাত্রীবাহী বাস যুক্তরাজ্য শেফিল্ড আওয়ামী লীগের ইফতার ও দোয়া মাহফিল উত্তরা সেন্ট্রাল প্রেসক্লাবের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত  “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে আন্তরিক ধন্যবাদ” নাটোর বড়াইগ্রামে ভুয়া এএসআই আটক ঢাকার এক বাড়িওয়ালা অনন্য নজির স্থাপন করলেন স্বাধীনতা আমাদের জাতীয় জীবনের শ্রেষ্ঠ অর্জন: খসরু চৌধুরী এমপি-১৮ হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তির সহস্রাধীক পরিবারের মাঝে ইঞ্জিঃ মোহাম্মদ হোসাইনের ঈদ উপহার বিতরণ  ২৬ শে মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২০২৪ উপলক্ষে পুষ্পস্থবক বিনম্র শ্রদ্ধা প্রতারক হুমায়ুন কবির ও তার পরিবার

নেত্রকোনা বারহাট্টায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সরকারি কোটি টাকার জমি দখলমুক্ত

নিউজ দৈনিক ঢাকার কন্ঠ

সোহেল খান দূর্জয় নেত্রকোনা :
নেত্রকোনার বারহাট্টায় ০৮.০২.২০২৩ ইং দীর্ঘ পঞ্চাশ বছর পর সরকারী জমি চিহ্নিত করল প্রশাসন। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সানজিদা চৌধুরী লাল নিশান টানিয়ে ওই জমিটি চিহ্নিত করেন। চিহ্নিত এই জমিটির বাজার মূল্য প্রায় দুই কোটি টাকা।
উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি), সার্ভেয়ার ও ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা সরেজমিনে হালটটি চিহ্নিত করে লাল নিশান টানিয়েছেন।
জানা গেছে, বারহাট্টা সদরের গোপালপুর ও গুহিয়ালা মৌজার বারহাট্টা-কোর্টরোড-আটপাড়া সড়ক থেকে পশ্চিম দিকে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম পর্যন্ত সরকারী এক নম্বর খতিয়ানের ৩৪০ দাগে প্রায় ৩৪ ফুট প্রস্থ ও শতাধিক ফুট দীর্ঘ একটি হালট বিদ্যমান। কিছুলোক প্রায় পঞ্চাশ বছর ধরে এই হালটের উপর স্থাপনা তৈরী ও বে-আইনীভাবে ভোগ-দখল করে আসছিলেন।
এমতাবস্থায় স্থানীয় সাইফুল ইসলাম, আমীন মিয়া, সজীব কুমার পাল, জিয়াউল হক, রুপন কুমার বিশ্বাস, অমলেশ চক্রবর্তীসহ অন্যরা হালটটি দখলমুক্ত করার জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন জানান। সরেজমিনে পরিদর্শনে আবেদকারিদের দাবি সত্য প্রমাণীত হয়।
এলাকাবাসী হাবিবুর রহমান বলেন, এখানে প্রতিকাঠা জমির মূল্য ৭০ থেকে আশি লক্ষ টাকা। সেই হিসেবে এই হালটের তিনকাঠা জমির মূল্য হয় দুই কোটি দশ লাখ টাকা।
বিষয়টি জানার জন্য মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সানজিদা চৌধুরীকে মোবাইল ফোনে কল করে কোন সাড়া পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপারে বারহাট্টা উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মাজহারুল ইসলাম বলেন, এই সরকারী হালটটি চিহ্নিত করা ছিল না। সহকারী কমিশনার (ভূমি), সার্ভেয়ার ও ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা সরেজমিনে হালটটি চিহ্নিত করে লাল নিশান টানিয়েছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

দৈনিক ঢাকার কন্ঠ
© All rights reserved © 2012 ThemesBazar.Com
Design & Developed BY Hostitbd.Com