মঙ্গলবার, ১৮ Jun ২০২৪, ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
ব্রেকিং নিউজ টঙ্গী স্টেশন রোড ফ্লাইওভার এর উপরে বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত তিন কলকাতা আঞ্চলিক মহেশ্বরী সভা ও সম্মাননা প্রদান এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান.. বর্তমান সরকার অবাধ তথ্য প্রবাহে বিশ্বাসী: শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বেগম শামসুন নাহার এমপি “ঈদুল আজহার ত্যাগের মহিমায় ও সন্তুষ্ট সর্বময় সৃষ্টিকর্তার” দুমকীতে জমিজমার বিরোধে অন্তঃসত্ত্বা,শিক্ষিকাকে মারধরে তিনজন আহত চার দিনের মাথায় আবারও ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, কসবা আ্যক্র প্পালিস মলে তৃতীয় ও চতুর্থ তলে দুমকিতে ঈদ উল আযহা ঘনিয়ে আসায় জমতে,শুরু করেছে পশুর হাট বাড়ছে ক্রেতা সমাগম ঈদে নারীর টানে ঘড় মুখো মানুষের নিরাপদ যাত্রা নিশ্চিত করতে নিরলস কাজ করছে গাইবান্ধা জেলা পুলিশ উত্তরা পশুর হাটে চাঁদাবাজিকালে গ্রেফতার ৪ বেলদা গঙ্গাধর একাডেমিতে, পড়ুয়াদের জন্য পরিশ্রুত ঠান্ডা পানীয় জলের মেশিন বসলো..

শ্রীপুরে উপজেলা নির্বাচনী প্রচারণার গাড়ী চাঁপায় শিশুর মৃত্যুর ৩ দিন পর মামলা: আসামী অজ্ঞাত

নিউজ দৈনিক ঢাকার কন্ঠ 

শ্রীপুর নিজস্ব প্রতিনিধি:

দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠিতব্য গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে (আনারস) প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জলিলের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর সময় মাইক্রোবাসের চাপায় এক শিশু মৃত্যুর ৩ দিন পর শনিবার শ্রীপুর থানায় মামলা হয়েছে। নিহত শিশুর মা মিমি আক্তার অজ্ঞাতনামা চালক ও গাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেছেন।

মামলা দায়ের করার বিষয়টি শনিবার নিশ্চিত করেছেন শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আকবর আলী খান।

এর আগে গত ১৫ মে বুধবার পৌনে ১১টার দিকে গাজীপুরের শ্রীপুর থানাধীন মুলাইদ এলাকার শফিকের মোড়ে মজিবুরের বাড়ীর সামনে নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যবহৃত একটি মাইক্রোবাস চাঁপায় শিশুর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশুর নাম ইয়াসিন (৪)। সে গাজীপুর মহানগরীর ২৩ নং ওয়ার্ডের হাতিয়াব এলাকার কাতার প্রবাসী জহিরুল ইসলামের ছেলে। শিশুটি তার মায়ের সাথে শ্রীপুর উপজেলার মূলাইদ গ্রামের নানার বাড়ীতে বেড়াতে গিয়েছিল।

দুর্ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে। একটি পক্ষ ঘটনাটি ধাপাচাঁপা দিয়ে চেষ্টা করে। একারণে আইনী প্রক্রিয়া অনুসরণ না করেই শিশুটির লাশ দাফন করা হয়।

এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়।

এ বিষয়ে ঘটনার দিন শিশুটির মামা ও যুবদল নেতা আব্দুর রাহিম জানান, শিশুটি তার মায়ের সাথে নানা বাড়ীতে বেড়াতে এসেছিল। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হঠাৎ করে সে বাড়ীর পাশের সড়কে ওঠে আসলে একটি গাড়ীর চাঁপায় সে মারা যায়। তিনি বলেন, এটি একটি দুর্ঘটনা। গাড়ীর কোন নাম্বার পাওয়া গেছে কি না বা গাড়ীর মালিক কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা জানার চেষ্টা করছি। এ বিষয়ে আমাদের কোন অভিযোগ নেই।

ঘটনার দিন চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জলিলও দুর্ঘটনার সাথে তিনি তা তার গাড়ী জড়িত নয় বলে দাবী করেছিলেন। তিনি বলেন, দুর্ঘটনার বিষয়ে আমি কিছু জানি না।

পরে গত ১৬ মে এ ঘটনায় শ্রীপুরের অধিবাসী আশিক বিন ইদ্রিস অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও রিটার্নিং কর্মকর্তার নিকট আচরন বিধি ভঙ্গের অভিযোগে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাচনে আনারস প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আঃ জলিলের প্রার্থীতা বাতিলের আবেদন।

আবেদনে তিনি অভিযোগ করেন, আগামী ২১ মে ২০২৪ ইং শ্রীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে আমি একজন সাধারণ ভোটার। বর্তমানে প্রার্থীদের প্রচারনা চলছে। গত ১৫ মে সকাল সাড়ে ১০টায় শ্রীপুর উপজেলার মুলাইদ গ্রামে জনৈক মজিবুর রহমানের বাড়ীর সামনে আনারস প্রতিকের বিশাল গাড়ির শোডাউন অনুষ্ঠিত হয়। শোডাউনে একাধিক গাড়ি এবং একাধিক মাইক ব্যবহৃত হয়েছে। শোডাউনের একটি গাড়ীর নিচে চাপা পড়ে ইয়াছিন (৪) নামে একজন শিশু নিহত হয়। বেআইনী শোডাউন ও একাধিক শব্দযন্ত্র ব্যবহার করে একটি নৃশংস হত্যা কান্ড সংঘটন করায় উপজেলা পরিষদ আচরন বিধি মালা ২০১৩ এর ১৩, ২১(২) ধারা সহ আচরন বিধির বিভিন্ন ধারা উপধারা লঙ্গন পূর্বক হত্যা কান্ডের মত ফৌজদারী অপরাধ সংঘটিত হয়েছে। ইতিপূর্বে আনারস প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আঃ জলিল আচরন বিধি লঙ্গনের দায়ে অভিযুক্ত হয়েছেন।

তিনি আবেদনে, দ্বিতীয় বার আচরন বিধি লঙ্গন করে একটি নৃশংস হত্যা কান্ড সংঘটিত করায় অভিযুক্ত প্রার্থীর প্রার্থীতা বাতিল সহ হত্যা কান্ডের দায়ে প্রার্থী ও তাহার সমর্থকদের বিরুদ্ধে ফৌজদারী মামলা দায়েরের আবেদন করেন।

এ আবেদনের পর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মামুনুল করিম তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেন।

পরবর্তীতে তদন্ত কমিটির সদস্য সচিব ও শ্রীপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আল নোমান শুক্রবার আবেদনকারী আশিক বিন ইদ্রিস এবং চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জলিলকে শনিবার সকালে তার অফিসে হাজির হয়ে নিজ নিজ পক্ষে তথ্য প্রমানসহ বক্তব্য উপস্থাপনের জন্য নোটিশ জারি করেন।

শনিবার সকালে উভয়পক্ষ হাজির হয়ে তদন্ত কমিটির কাছে তাদের নিজ নিজ বক্তব্য উপস্থাপন করেন। তারপরেই এ ঘটনায় শ্রীপুর থানায় মামলাটি দায়ের করা হলো।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ১৫ মে (বুধবার) সকাল ১০টার দিকে মুলাইদ সফিক মোড় এলাকায় অজ্ঞাত মাইক্রোবাস চালক বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালিয়ে যাওয়ার সময় শিশু ইয়াসিনকে চাপা দেয়। এতে শিশুটি গুরুতর আহত হয়। এলাকাবাসীর স্থানীয়দের সহযোগিতায় শিশুকে উদ্ধার করে স্থানীয় আলহেরা হাসপাতালের নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এরপর দ্রুত অ্যাম্বুলেন্স যোগে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রওনা হলে পথি মধ্যে শিশুর অবস্থার অবনতি হলে ত্রিশাল উপজেলার এমসি নামের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে নিয়ে ভর্তি করা হয়। ওই ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলা সাড়ে এগারোটা দিকে শিশুর মৃত্যু হয়।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর আলী খান বলেন, শিশু মৃত্যুর বিষয়টি আমলে নিয়ে থানায় মামলা রুজু হয়েছে। অজ্ঞাতনামা চালক ও গাড়ি শনাক্ত করতে কাজ করছে পুলিশ। দ্রুত সময়ের মধ্যে চালককে আইনের আওতায় এনে বিচারের মুখোমুখি করা হবে।

উল্লেখ্য, শ্রীপুর উপজেলা পরিষদ ঘোড়া প্রতীকের অপর প্রার্থী ছিলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর বড় ভাই জামিল হাসান দুর্জয়। আচরণবিধি ভঙ্গের কারণে নির্বাচন কমিশন তার মনোনয়ন বাতিল করে দিয়েছে। পরে জামিল হাসান দুর্জয় প্রার্থীতা ফিরে পেতে উচ্চ আদালতে আপীল করেছেন বলে জানা গেছে। রোববার তার আপীলের বিষয়ে আদালতে রায় হতে পারে।

Please Share This Post in Your Social Media

দৈনিক ঢাকার কন্ঠ
© All rights reserved © 2012 ThemesBazar.Com
Design & Developed BY Hostitbd.Com