সোমবার, ২২ Jul ২০২৪, ১০:৫৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
পিএস সি দুর্নীতি মুক্ত মঞ্চের ডাকে, বিভিন্ন দাবী নিয়ে পি এস সি অফিস অভিযান ও ডেপুটেশন। যারা রাজাকারের পক্ষে শ্লোগানে নেতৃত্ব দিয়েছে তাদের বিরূদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া ও রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন নতুন সাক্ষাৎকারে মানসিক বিচক্ষনতার পরিচয় দিলেন বাইডেন আগামী ১৮ জুলাই সকল বোর্ডের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আগামীকাল পবিত্র আশুরা পবিত্র আশুরা সমগ্র মুসলিম উম্মা’র জন্য এক তাৎপর্যময় ও শোকের দিন : রাষ্ট্রপতি ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দুটি বাসে অগ্নিসংযোগ ৭ শিক্ষার্থী নিহতের দায় সরকার এড়াতে পারে না – লেবার পার্টি

রওশন এরশাদ দাবি ১১০ আসন..

নিউজ দৈনিক ঢাকার কন্ঠ 

রফিকুল হক শিকদার জাহাঙ্গীর 

 

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ২০২৪ ইং ১১০ আসন দাবি রওশন এরশাদ

জি এম কাদেরের নেতৃত্বে মূল দল দেবে আলাদা তালিকা

বর্তমান জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক বেগম রওশন এরশাদ আগামী সংসদ নির্বাচনে জোটগতভাবে আওয়ামী লীগের কাছে ১১০ আসন চান। গত ১১ সেপ্টেম্বর একটি মাধ্যমে জাপার কাক্সিক্ষত ১১০ আসনের তালিকা প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়েছে বলে সূত্র নিশ্চিত করেছে। এর আগে গত ১৯ আগস্ট রওশন এরশাদ গণভবনে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। ইতোমধ্যে সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনে যাওয়ার আগাম ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। সরকারের সঙ্গে থাকতে দলটির প্রায় সব এমপি ও অধিকাংশ জ্যেষ্ঠ নেতার চাপ রয়েছে। এদিকে পার্টির শীর্ষ নেতারা বলছেন, জাতীয় পার্টি আগামীতে ৩০০ আসনে ভোট করবে। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন তারা। সবমিলিয়ে জাতীয় পার্টির অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতি এখনো স্পষ্ট নয়। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রওশন এরশাদের সাক্ষাতের সময় উপস্থিত জাপার এক নেতা বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী রওশন এরশাদকে বলেছেন, নির্বাচনের মাঠে লড়াই করে জয় নিয়ে আসতে সক্ষম, এমন যোগ্য প্রার্থীদেরই যেন মনোনয়ন দেওয়া হয়। ওই নেতা বলেন, আমরা এখন ১১০ জনের তালিকা দিয়েছি। পরে আরও সংক্ষিপ্ত তালিকা দেওয়া হবে। সেই তালিকায় এমন কিছু নাম চলে আসতে পারে যাদের নাম এই তালিকাতে নেই।

জোটগতভাবে যে ১১০ আসনের তালিকা দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে- বেগম রওশন এরশাদ-ময়মনসিংহ ৪, রাহগীর আল মাহী সাদ এরশাদ-রংপুর ৩, অ্যাড. সালমা ইসলাম-ঢাকা ১৭/ ঢাকা ১, খন্দকার রফিকুল ইসলাম-ময়মনসিংহ ৬, এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার-পটুয়াখালী ১, ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ-চট্টগ্রাম ৫, কাজী ফিরোজ রশীদ-ঢাকা ৬, কাজী মো. মামুনূর রশীদ-ঢাকা ১৭/ ব্রাহ্মণবাড়িয়া ৫, আসিফ শাহরিয়ার/ মশিউর রহমান রাঙা-রংপুর ১, মজিবুল হক চুন্নু-কিশোরগঞ্জ ৩, নাসরিন জাহান রত্না-বরিশাল ৬, আহসান আদেলুর রহমান আদেল/ এন কে আলম-নীলফামারী ৪, মেহেরুন্নেসা টুম্পা/ ড. আক্কাস আলী সরকার-কুড়িগ্রাম ৩, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী/ মোস্তফা মহসিন সর্দার-গাইবান্ধা ১, এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান-কুড়িগ্রাম ১, শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ-বগুড়া ২, নুরুল ইসলাম ওমর-বগুড়া ৬, রুস্তম আলী ফরাজী-পিরোজপুর ৩, গোলাম মোহাম্মদ কাদের/ অধ্যক্ষ মাহবুবুল আলম মিঠু-লালমনিরহাট ৩, ফখরুল ইমাম-ময়মনসিংহ ৮, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা-ঢাকা

৪, মো. আবু তালহা-নাটোর ১, মিজানুর রহমান মিজান-ভোলা ২, সবিতা বেগম-কিশোরগঞ্জ ১, রাজিউর রাজি চৌধুরী স্বপন-ঠাকুরগাঁও ১/ ঠাকুরগাঁও ৩, ইঞ্জিনিয়ার ইকরামুল খান-ময়মনসিংহ ৭, আজাহার হোসেন/ অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান-সাতক্ষীরা ২, সফিকুল ইসলাম সেন্টু-ঢাকা ১৩, মিজানুর রহমান-বরগুনা ২, মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী-চট্টগ্রাম ১৬, এম মুহিবুর রহমান-ঢাকা ১৮, মসিউর রহমান রাঙ্গা/মোস্তফা সেলিম বেঙ্গল- লালমনিরহাট ১, সোলাইমান আলম শেঠ- পার্বত্য খাগড়াছড়ি, জাফর ইকবাল সিদ্দিকী- নীলফামারী ১, মো. হাফিজ উদ্দিন আহমেদ-ঠাকুরগাঁও ৩, এইচ এম গোলাম শহীদ রঞ্জু-গাইবান্ধা ৫, আবু সাঈদ লিয়ন/ফারুক কাদের/ রানা মোহাম্মদ সোহেল- নীলফামারী ৩, ইঞ্জিনিয়ার মামুনুর রশীদ-জামালপুর ৪, মামুনুর রহিম সুমন- টাঙ্গাইল ৬, আবুল কাসেম/ আবদুস সালাম চাকলাদার-টাঙ্গাইল ৩, মোস্তফা কামাল জাহাঙ্গীর-খুলনা ৬, আবদুল গফফার বিশ্বাস/ মোল্লা শওকত হোসেন বাবুল-খুলনা ৩, সরোয়ার হোসেন শাহীন/আবদুর রশিদ সরকার-গাইবান্ধা ২, আবু সাঈদ স্বপন- নরসিংদী ২, ইকবাল হোসেন রাজু-কুমিল্লা ৪, সাব্বির হোসেন/জহিরুল হক-যশোর ৪, সরদার জুয়েল হোসেন-রাজশাহী ২, অ্যাভোকেট মাহবুবুল আলম বাচ্চু-যশোর ৩, ডা. সৈয়দ আবুল কাসেম/ অ্যাডভোকেট এস এম মাসুদুর রহমান-খুলনা ৪, শংকর পাল-হবিগঞ্জ ২, জহিরুল ইসলাম জহির/ নুরুল হক নুরু-টাঙ্গাইল ৭, মোস্তফা সেলিম বেঙ্গল-রংপুর ৪, শাহিন আরা সুলতানা-চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৩, আবদুস সবুর আসুদ/ হাজী তুহিনুর রহমান নুরু-ঢাকা ৫, আবুল কাশেম রিপন-জয়পুরহাট ২, মফিজুর রহমান-কক্সবাজার ২, মো. ইলিয়াস উদ্দিন-শেরপুর ১, মো. নেওয়াজ উদ্দিন ভুঁইয়া-নরসিংদী ৪, কাজী আশরাফ সিদ্দিকী/ এনাম জয়নাল আবেদীন-টাঙ্গাইল ৮, সৈয়দ দিদার বখত-সাতক্ষীরা ১, আলমগীর শিকদার লোটন-নারায়ণগঞ্জ ২, এস এম ফখর উজ জামান-রংপুর ৫, আ স ম মোক্তাদির তিতাস-জয়পুরহাট ১, জহির মজুমদার/ জাফর আহমেদ রাজু-ফেনী ২, ফারহিন হাসান-গাজীপুর ২/ গাজীপুর ৫, সাজ্জাদ রশীদ-চাঁদপুর ৪, আবুল কাসেম/ আলাউদ্দিন মৃধা-নাটোর ৪, শেখ মো. সিরাজুল ইসলাম-মুন্সীগঞ্জ ২, শাহাবুদ্দিন বাচ্চু-রাজশাহী ৩, আবদুস সাত্তার মোড়ল-সাতক্ষীরা ৪, মেজর (অব) মাহফুজুর রহমান/ মো. মিজানুর রহমান-ঝিনাইদহ ২, বাচ্চু মন্ডল-ঝিনাইদহ ৪, অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূইয়া/ শাহ জামাল রানা/ পীরজাদা জুবায়ের-ব্রাহ্মণবাড়িয়া ৩, মোস্তফা আল মাহমুদ-জামালপুর ২, জুলফিকার হোসেন-দিনাজপুর ২, মো. নোমান-লক্ষ্মীপুর ২, মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক-ঢাকা ১৪, জসীমউদ্দিন ভুঁইয়া-নেত্রকোনা ৩, মোতাহার হোসেন চৌধুরী রাশেদ-ফেনী ১, আতিকুর রহমান আতিক/ওসমান আলী- সিলেট ৩, সাফিয়া খাতুন/ তৌহিদ খান সাতক্ষীরা-৩, নাজমুন নাহার তুলি-নরসিংদী ৪, গোলাম সারোয়ার মিলন/ এম এ মান্নান-মানিকগঞ্জ ১, হাজী সাইফ উদ্দিন মিলন/ তারেক আহমেদ আদেল-ঢাকা ৭, গোলাম কিবরিয়া টিপু/ ফখরুল আহসান শাহজাদা-বরিশাল ৩, এম এ গোফরান/ মাহমুদুর রহমান/বেলাল হোসেন-লক্ষীপুর ১, সালাহ উদ্দিন আহমেদ-নোয়াখালী ২, লুৎফর রেজা খোকন-কুমিল্লা ৭, ইফতেখার আহসান হাসান/ মাখন সরকার/ আবদুল কাদের জুয়েল-কুমিল্লা ১, মো. নুরুল ইসলাম তালুকদার-বগুড়া ৩, সালাহউদ্দিন মুক্তি-ময়মনসিংহ ৩, শামসুল আলম-কক্সবাজার ১, এ কে এম মর্তুজা আবেদিন-বরিশাল ৫ ও শিকদার আলমগীর কবির-মাগুরা ১।

Please Share This Post in Your Social Media

দৈনিক ঢাকার কন্ঠ
© All rights reserved © 2012 ThemesBazar.Com
Design & Developed BY Hostitbd.Com